তথ্য ও প্রযুক্তির খবর

মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাপল তাদের ১০০ কোটিতম আইফোনটি বিক্রি করেছে। ২০০৭ সালের ২৯ জুন প্রথম বাজারে আসা আইফোন বেশ কয়েকটি সংস্করণ পেরিয়ে এই মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলল। প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট ম্যাশেবল জানিয়েছে এই খবর।

অ্যাপলের এই মাইলফলক অর্জন করার খবর এলো তাদের ২০১৬ অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে আইফোন বিক্রির প্রতিবেদন প্রকাশের পরের দিন। সে প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে গেল প্রান্তিকে সারা বিশ্বে আইফোন বিক্রি হয়েছে চার কোটির বেশি।

১০০ কোটি স্মার্টফোন বিক্রি যেকোনো প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের জন্যই এক বিশাল প্রাপ্তি। অ্যাপলের এই বিশাল অর্জনে খরচ হয়েছে মাত্র নয় বছর।

তবে অতীতের তুলনায় অ্যাপলের আইফোন যে বেশি সংখ্যক মানুষের কাছে আবেদন তৈরি করতে পারছে, তা তাদের মাইলফলকগুলো বিশ্লেষণ করলেই বোঝা যায়।

২০০৭-এ বাজারে আসা আইফোন বিক্রির অর্ধশত কোটি পূর্ণ করতে বেশ খানিকটা সময় নিয়েছিল। ২০১৪ সালের মার্চে ৫০ কোটি আইফোন বিক্রির রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলে অ্যাপল। আর গত বছর মার্চে এ সংখ্যা দাঁড়ায় ৭০ কোটিতে।

পৃথিবীর বিভিন প্রান্তে অ্যাপল তাদের পণ্য বিক্রির সুবিধা চালু করায় আইফোনের মতো পণ্য বিক্রি বাড়ছে বেশ দ্রুতগতিতে। বিশেষ করে চীনের মতো ক্রমবর্ধমান বাজারে আইফোন বেশ শক্ত জায়গা দখল করেছে।

গত জানুয়ারিতে অ্যাপল জানিয়েছিল, পৃথিবীজুড়ে তাদের ১০০ কোটির বেশি অ্যাকটিভ ইউজার রয়েছে। তবে সে গণনায় আইফোনের পাশাপাশি আইপ্যাড কিংবা ম্যাকের মতো ডিভাইসও অন্তর্ভুক্ত ছিল। তবে স্মার্টফোন কিংবা ট্যাবলেট কম্পিউটারের ক্ষেত্রে অ্যাপলের সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী গুগল বেশ আগেই এই রেকর্ড অর্জন করেছে। ২০১৪ সালের জুনে গুগল ১০০ কোটি নিয়মিত ব্যবহারকারীর মাইলফলক পার করে।

প্রযুক্তি বিশ্লেষক বেনিডিক্ট ইভান জানান, এ মুহূর্তে পৃথিবীতে মোটামুটি ৬৩ কোটি আইফোন সচল রয়েছে। অন্যদিকে অ্যানড্রয়েড স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে সংখ্যাটি ১৩০ থেকে ১৪০ কোটির মাঝামাঝি।